মেঘের দেশ সাজেক ভ্যালিতে বর্ষবরণ 2017

tiiz এর মাধ্যমে বিক্রির জন্য31 অক্টো 11:30 এএমমোহাম্মদপুর, ঢাকা

৳ ৪,৫০০

সাজেক – মেঘের দেশে বছরে শেষ দিন টাকে বিদায় এবং নতুন বছর কে স্বাগতম জানাতে আগামী ৩০শে ডিসেম্বর ২০১৬ আমরা যাচ্ছি মেঘ পাহাড়ের সাজেক ভ্যালী এবং খাগড়াছড়িতে ।

প্রতিদিনকার একঘেয়ে জীবন থেকে আলাদা স্বাদ নিতে চলুন ঘুরে আসি সবুজ পল্লবঘন পাহাড়ি সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি খাগড়াছড়ি ও স্বর্গ রাজ্য খ্যাত সাজেক ভ্যালীতে। পাহাড়ের গায়ে হেলান দিয়ে এখানে আকাশ ঘুমায়, পাহাড়ের বন্ধনহীন মিলন দেখা যায়। কোথাও কোথাও তুলার মতো দলছুট মেঘের স্তুপ ভেসে বেড়ায় পাহাড়ের চূড়ায়, যেন স্বপ্নরাজ্য। সাথে থাকবে রিসং ঝর্ণা ও আলুটিলা গুহা।

কটেজঃ Hapong Tong Resort
ভ্রমন তারিখঃ ৩০শে ডিসেম্বর ২০১৬ – ১ লা জানুয়ারি ২০১৭

এই ভ্রমণ প্যাকেজটির অন্তর্ভুক্ত সুবিধাসমূহ:
১. ৩ রাত ২ দিনের বিলাসবহুল আনন্দময় ভ্রমণ।
২. ঢাকা-খাগড়াছড়ি-ঢাকা নন-এসি বাসে যাত্রা।
৩. সাজেক ভ্যালীতে ১ রাতের বিলাসবহুল থাকার ব্যবস্থা (সাজেক এর এন্ট্রি ফী দেওয়া হবে)।
* রিসাং ঝর্না
*সাজেক
*রুই লুই পাড়া
*কংলক পাড়া
*স্টোন গার্ডেন
*আলুটিলা গুহা
৪. ৩১ শে ডিসেম্বর বছরের শেষ সূর্যাস্ত হেলিপ্যাড থেকে উপভোগ।
৫. ফানুশ উড়িয়ে রাত উপভোগ।
৬. ১ লা জানুয়ারি ভোরে কংলাক পাড়া থেকে নতুন বছরের সূর্যোদয় উপভোগ।
৭. রিসং ঝর্ণা যাত্রার ব্যবস্থা।
৮. আলুটিলা গুহা যাত্রার ব্যবস্থা। (এন্ট্রি ফী ও মশালের খরচ দেওয়া হবে)
৯. ৩১ শে ডিসেম্বর ২০১৬ (সকাল, বিকাল ও রাত) – ১ লা জানুয়ারি ২০১৭(সকাল, বিকাল ও রাত) পর্যন্ত সব খাওয়া-দাওয়ার সম্পূর্ণ ব্যবস্থা।
১০. ট্যুর ফটোগ্রাফির সুবিধায় বিনা খরচে আপনার মূল্যবান স্মৃতিটি সাথে করে নিয়ে যেতে পারবেন।

===== যাত্রার বিবরণ =====
যাত্রার তারিখ: ৩০/১২/২০১৬ রাত ৯ টায়।
ফেরার তারিখ: ০১/০১/২০১৭ রাত ৮ টায়।
যাত্রার উপস্থিত স্থান: ঢাকার কলাবাগান বাস কাউন্টার।
মুল্য: ৩ রাত ২ দিন আরামদায়ক এবং আনন্দময় ভ্রমণের খরচ ৪৫০০ টাকা প্রতিজন মাত্র।
আসন সংখ্যা: ১৫
বুকিং মূল্য: ২০০০ টাকা।

১ম দিন :
*** ৩০ শে ডিসেম্বর ২০১৬ – ঢাকার কলাবাগান বাস কাউন্টার থেকে রাত ৯ টায় যাত্রা শুরু
*** ৩১ শে ডিসেম্বর ২০১৬ – দীঘিনালায় নাস্তা করে সাজেক এর উদ্দেশ্যে যাত্রা (আর্মি এসকর্ট সকাল ১০টা)। দুপুরের মধ্যে সাজেক পৌছিয়ে ফ্রেশ হয়ে লাঞ্চ করে ইচ্ছে মত ঘোরাঘুরি। বছরের শেষ সূর্যাস্ত টা আমরা হেলিপ্যাড থেকে উপভোগ করবো এবং হেলিপ্যাড এ ফানুশ উড়িয়ে রাত টা উপভোগ করব।
*** রাত যাপন - সাজেক ভ্যালীতে (Hapong Tong Resort)
২য় দিন:
*** ১ লা জানুয়ারি ২০১৭ – খুব ভোরে কংলাক পাড়ায় থেকে নতুন বছরের সূর্যোদয় উপভোগ করে নতুন বছর কে স্বাগতম জানাবো। এরপর সকাল ১০:৩০ টার আর্মি এসকর্টে করে দীঘিনালার উদ্দেশ্যে যাত্রা এবং সেখান থেকে লাঞ্চ করে রিসং ঝর্না এবং আলুটিলা গুহায় যাবো। তারপর রাত ৮ টায় বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা।

*** ২ রা জানুয়ারি ২০১৭ – ভোরে ঢাকায় পৌঁছানো হবে ইনশাআল্লাহ।
*** পরিস্থিতি বিবাচনায় প্ল্যানে যেকোন ধরনের গ্রহনযোগ্য এদিক-সেদিক হতে পারে।

====== শিশু পলিসি ======
০-৩ বছর: কোন খরচ লাগবেনা (বাবা মার সাথে থাকবে, বাসে বাবা মার সাথে বসবে, আলাদা খাবার পাবেনা)
৪-১০ বছর : ৪৫০০ টাকা জনপ্রতি (বাসে আলাদা সীট, বাবা মার সাথে থাকবে হোটেলে, আলাদা খাবার পাবে )

===== যা থাকছে না=====
*** কোন ব্যক্তিগত খরচ।
*** কোন ওষুধ।
*** কোন ব্যক্তিগত রাইড এর খরচ দেওয়া হবে না।

===== যা সঙ্গে রাখবেন =====
*** যথাসম্ভব হালকা ব্যাকপ্যাকে ৩ দিন এর ভ্রমন উপযোগী কাপড় চোপড় সাথে নিতে হবে।
*** রোঁদ বৃষ্টির সতর্কতা স্বরূপ লুঙ্গী, গামছা, সানগ্লাস, ক্যাপ ও ছাতা ( মোবাইল, ক্যামেরা বৃষ্টির হাত থেকে বাচানোর জন্য পলিথিন) সাথে নিবেন।

===== সতর্কতাসমুহ =====
১. যেহেতু সাজেক পাহাড়ি এলাকা তাই কিছুটা অসুবিধা হতে পারে, সবকিছু আপনার মনের মত নাও হতে পারে । তাই সবকিছু মেনে নেবার মনমানসিকতা থাকাটা অত্যন্ত জরুরি এবং যেকোনো প্রয়োজন বা অসুবিধার বিষয়ে দলনেতার সাথে কথা বলে নিবেন। ভ্রমণ সঙ্গীদের সাথে যথা সম্ভব ভাল আচরন করবেন, সব থেকে ভাল হয় যদি বন্ধুত্ব করে ফেলতে পারেন। এতে আপনার ভ্রমনটাই আনন্দদায়ক হয়ে উঠবে ।
২. স্থানীয়দের (উপজাতিদের) সাথে কোনো প্রকার ঝামেলায় নিজেকে জড়াবেন না ।
৩. সাজেকে গ্রামীণ ফোন, বাংলালিংক ও এয়ারটেল এর নেটওয়ার্ক নাই বিধায় আপনার ফোন টা যদি সচল রাখতে চান তাহলে রবি অথবা টেলিটকের সিম সাথে রাখবেন।

===== খাবার মেন্যু =====
*** সকালের নাস্তা: ডিম+ সবজি +পরটা +চা অথবা খিচুরি+ডিম ভুনা
*** দুপুরের আহার: মুরগীর মাংস /মাছ+সবজি +ডাল +সাদা ভাত
*** রাতের আহার: মুরগীর মাংস/মাছ +সবজি +ডাল+সাদা ভাত

===== বুকিং পলিসি =====
১. ডিসেম্বর মাসের ০৫ তারিখের মধ্যে ২০০০টাকা অগ্রীম দিয়ে নিজ নিজ আসন কনফার্ম করতে হবে কারণ আমাদের বাস, চান্দের গাড়ী, রিসোর্ট বুকিং দিতে হবে। বাকি ২৫০০ টাকা ট্যুরের দিন পেমেন্ট করতে হবে।
২. টাকা পাঠানোর নিয়মঃ আগ্রহীরা দ্রুত ২০০০/= টাকা পার্সোনাল নম্বরে bKash (খরচ ৪০ টাকা সহ) করে আপনার যাত্রা কনফার্ম করতে পারবেন। bKash করেই সাথে সাথে ঐ আমাদের ফোন করে নিজের নাম এবং Transaction Id জানাবার পরেই আপনার আসন কনফার্ম করা হবে। অথবা সামনা-সামনিও দেখা করে টাকা দিতে পারেন। টাকা পরিশোধ করে মানি রিসিপ্ট বুঝে নিন। বুকিং সংক্রান্ত যেকোনো তথ্য জানতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

===== কিছু কথা ======
*** সাজেকে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা কিন্তু আদিবাসীদের মতই। তবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন।
*** খাবারের ক্ষেত্রেও একই কথা। পাহাড়ি চালের ভাত, ভর্তা, ডিম, মুরগী। তবে আপ্রান চেষ্টা করবো খাগড়াছড়ির ঐতিহ্যবাহী কিছু খাবার খাওয়াতে।
*** আপনার ভ্রমণের সময়কে স্মরণীয় করে রাখতে আমরা আয়োজন করেছি ট্যুর ফটোগ্রাফির। ট্যুর ফটোগ্রাফির সুবিধায় আপনি বিনা খরচে আপনার মূল্যবান স্মৃতিটি সাথে করে নিয়ে যেতে পারবেন।

যেকোনো সমস্যায় অথবা যেকোনো প্রশ্নের উত্তরের জন্যে যোগাযোগ করুন আমাদের হটলাইন নাম্বারে।

আরও জানতে আমাদের ফেসবুক ইভেন্ট দেখুন। লিঙ্কঃ https://www.facebook.com/events/1665713877072400/


সেবার ধরণ:
ভ্রমণ ও পর্যটন
অভিযোগ করুন

যোগাযোগ করুন

  • 01676151854
  • 01911092015

 

নিরাপদ থাকুন!

  • সর্বদা বিক্রেতার সাথে সরাসরি দেখা করবেন
  • আপনি যা কিনতে যাচ্ছেন তা দেখার পূর্বে কোনো টাকা পরিশোধ করবেন না
  • অচেনা কারও নিকট টাকা পাঠাবেন না

দেখুন:

  • অবাস্তব মূল্য
  • অতিরিক্ত ফি
  • অগ্রিম অর্থ প্রদানের অনুরোধ
  • ব্যক্তিগত তথ্যের জন্য অনুরোধ

নিরাপদে থাকার আরও কিছু কৌশল


বিজ্ঞাপনটি শেয়ার করুন

অনুরূপ বিজ্ঞাপনসমূহ