এগ্রো ব্যবসায় বিনিয়োগকারী প্রয়োজন

Ample Dream এর মাধ্যমে বিক্রির জন্য ৭ ডিসে ৮:৪৯ এএমমোহাম্মদপুর, ঢাকা

আলোচনা সাপেক্ষে

আলোচনা সাপেক্ষে


প্রিয় বিনিয়োগকারী
আসসালামআলাইকুম আমি মোহাম্মাদ আলীমুজ্জামান মিল্টন পারিবারিক ভাবেই ব্যবসায়িক ছেলে হিসাবে গড়ে উঠা । আমার জেলা পড়ছে চুয়াডাঙ্গা সদর , ব্যবসায়িক অবস্থান চুয়াডাঙ্গা ও ঢাকা তে কাজ করা হয় । বর্তমানে আমার ব্যবসায়িক কার্যক্রম সারা বাংলাদেশেই চলমান । আমাদের পারিবারিক পুরাতন কৃষি ব্যবসা হল ষ্টক পণ্য সিজনে সংগ্রহ করে , অফ-সিজনে বিক্রি করা । ২০১২ থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত আমার নিজের প্রায় ২ কোটির টাকা মত বিনিয়োগ হয়ে গেছে , কারণ আমার একটি কৃষি গবেষণা কেন্দ্র আছে যেখানে আধুনিক কৃষি কাজ ও কৃষি পণ্যের সম্প্রসারণ করা নিয়ে গবেষণা ও প্রদর্শন করা হয় প্রতিনিয়ত । আমার বর্তমান ব্যবসায়িক কার্যক্রম চুয়াডাঙ্গা সদর ও মোহাম্মদপুর , ঢাকা এই দুই যায়গা থেকে পরিচালিত করি ।

১. বিনিয়োগকারী কত টাকা বিনিয়োগ করবে ? কেন বিনিয়োগ দরকার আমার ?
উওর: বিনিয়োগকারী আলোচনা সাপেক্ষে সর্বনিম্ন ১০-২০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে পারবে । আমার কাছে যে এগ্রো ব্যবসায়িক পরিকল্পনা আছে তা তে বেশ ভাল লাভ করে , কম ঝুঁকি তে ২ কোটি টাকা বিনিয়োগ করার মত সুযোগ সুবিধা আছে । এই মূহুর্তে বিনিয়োগ দরকার তার কারণ হল , আমি চাই আমার ব্যবসা সম্প্রসারণ করতে । বর্তমানে একটি প্রাইভেট ব্যাংক থেকে খুব অল্প টাকা সিসি লোণ আছে আমার ব্যবসার উপর । ব্যাংক থেকে বেশি সাপোট পাচ্ছি না বলে বিনিয়োগকারী খুঁজেছি , তা ছাড়া বড় কোন কারণ নেই ।

২. বিনিয়োগকারীর টাকা গুলো কি কি কাজে বিনিয়োগ করা হবে ?
উওর: বর্তমানে আমার আধুনিক কৃষি জাত বিভিন্ন ধরনের প্রায় ৪০ টির উপর পণ্য আছে , এর ভিতর কিছু আছে বার মাস বাজারে চাহিদা আছে , কিছু আছে শুধু মাত্র কিছু নির্দিষ্ট মাস বছরে চাহিদা থাকে । আমার ইচ্ছে হল বিনিয়োগকারীর টাকা গুলো যদি অধিক চাহিদা সম্পূর্ণ পণ্য গুলোতে ট্রেডিং করা বাবদ বিনিয়োগ করা যায় তাহলে খুব ভাল হবে ।
যে কৃষি উপজাত পণ্য গুলো তে টাকা বিনিয়োগ করা হবে : বীজ , প্লাস্টিক পট, প্লাস্টিক সিডলিং ট্রে স্থানীয় ভাবে উৎপাদন করা ও আমদানি করা , ও একই ধরনের উপজাত পণ্য আমদানি করতে । এগ্রো সেডনেট , ইনসেক্ট নেট আমদানি করতে । কোকপিট ব্লক আমদানি করতে ( নারকেলের শুকনা খোসার বাই প্রোডাক্ট) , ব্যয় করা হবে ।

৩. বিনিয়োগকারীর লভ্যাংশ কি ভাবে হবে ?
উওর: বিনিয়োগকারীর সাথে আলোচনা সাপেক্ষ লভ্যাংশ শেয়ার ভাগা ভাগি করা যেতে পারে । বিনিয়োগকারী চাইলে মাস শেষে ফিক্সড লভ্যাংশ নিতে পারে অথবা প্রতি মাসে সব হিসাব শেষে লভ্যাংশের শেয়ার নির্দিষ্ট অনুপাতে গ্রহণ করতে পারে । বিনিয়োগকারী যে ভাবে লভ্যাংশ নিতে চাই তা আমি আলোচনা করে দিতে পারবো ইনশাল্লাহ । প্রতিটি বিনিয়োগের টাকা ফেরত আসতে ৩০-৫০ দিন লাগবে স্বচ্ছ । প্রতি মাসে ৫%-১০% গড় লভ্যাংশ আসবে আশাকরি ।

৪. বিনিয়োগকারীর সাথে চুক্তি কত বছরের হবে ?
উওর: বিনিয়োগকারীর সাথে চুক্তি কমপক্ষে ৫ বছরের হবে , সেই সাথে সর্বনিম্ন দুই বছর চুক্তিবদ্ধ হয়ে থাকতে হবে । দুই বছর পর যদি বিনিয়োগকারী চাইলে আলোচনা সাপেক্ষে বিনিয়োগ কৃত টাকা ফেরত নিতে পারবেন ।

৫. চুক্তি কি ভাবে হবে ?
উওর: ২০০০ টাকার ষ্ট্যাম্পে আইনগত ভাবে নোটারি করে চুক্তিকরা হবে । বিনিয়োগকারীর টাকা কি কি খাতে বিনিয়োগ করা হবে তা সম্পর্কে সঠিক ও পরিষ্কার ব্যাখ্যা থাকবে ।

৬. ব্যবসায়িক ঝুঁকি কেমন ?
উওর : এগ্রো ভিতর অনেক ধরনের ব্যবসা আছে , আমার এগ্রো ট্রেডিং ব্যবসায় ঝুঁকি খুব কম । বিনিয়োগকারী যদি বিনিয়োগ করে তাহলে আলোচনা সাপেক্ষে ৩০% ঝুঁকির দায়ভার গ্রহণ করবে , ৭০ ভাগ ঝুঁকির দায়ভার আমি গ্রহণ করবো ।

৭. এগ্রো ব্যবসায় কোন ক্রেডিট সুবিধা আছে কিনা বা আমরা কোন ক্রেডিট ব্যবসা করি কিনা ?
উওর : না ।

৮. আমাদের ক্রেতা কে বা কাহারা ?
উওর: বর্তমানে আমরা বাণিজ্যিক ভাবে যে সকল কৃষক মৌসুমি সবজি উৎপাদন করে , তরমুজ , পেঁপে, পেয়ারা , আম , কলা ও অন্যান্য ফল তাদের কে আমরা বিভিন্ন প্রকার আধুনিক কৃষি উপকরণ বিক্রি ও সরবরাহ করে থাকি । সেই সাথে বিভিন্ন এনজিও আমাদের কাছ থেকে বর্তামানে বিভিন্ন সময়ে কৃষি পণ্য ক্রয় করে থাকে । এছাড়া বাংলাদেশ সরকারের কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠান , বিভিন্ন উপজেলা কৃষি অফিস ও আমাদের কাছ থেকে কৃষি পণ্য সংগ্রহ করে থাকে । বাণিজ্যিক কৃষকদের পাশাপাশি শহরে যে সকল মানুষ শহর কেন্দ্রিক নগর কৃষি কাজ করে তারা ও আমাদের ক্রেতা । আমরা শহরের নগর কৃষক দের কে গাছ লাগানো বিভিন্ন পট সামগ্রী, জৈব সার , গাছের মেডিসিন , গাছ পরিচর্যা করার জন্য গার্ডেন টুলস বিক্রি করে থাকি তাদের কাছে ।

৯. বর্তমানে আমরা কি কি ধরনের কাজ করতেছি ও কি কি চলমান আছে ?
উওর : আমরা বর্তমানে বিভিন্ন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি তে গ্রিন ফ্যাক্টরি ধারণা নিয়ে ন্যাচারাল বিউটিফিকেশন এর কাজ হাতে নিয়েছি । সেই সাথে বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকাধীন বাসা বাড়ি তে কাজ চলমান আছে বেশ কিছু প্রজেক্টে ।

১০. বিনিয়োগকারী বিনিয়োগ করলে এর জন্য কি কি সিকিউরিটি কি দিতে পারবো ?
উওর: বিনিয়োগ-কৃত টাকার সমমান চেক দিতে পারবো , বিনিয়োগকারী চাইলে নির্দিষ্ট অংকে প্রতি মাস হিসাবে একটি করে একাউন্ট পে চেক নিতে পারে । এর পাশা পাশী যদি মনে করে তাহলে তিন টি ব্ল্যাংক চেক নিয়ে রাখতে পারে । চেক গ্রহণ করার পূর্বেই তা চলমান কোন ব্যাংক একাউন্টের চেক কিনা তা যাচাই বাচায় করে প্রদান করা হবে । সিকিউরিটি বাবদ কোন জমির কাগজ যদি চাই শুধুমাত্র দলিল দিতে পারবো কোন মিউটেশন পেপার চাইলে দিতে পারবো না । বিনিয়োগকারী যদি মনে করে এবং সবকিছু তে পজিটিভ থাকে তাহলে আমার নিজ জেলা চুয়াডাঙ্গা ঘুরে দেখতে পারে , যে আমরা ব্যবসায়িক হিসাবে কেমন ? কতটা আমাদের কাজ কর্ম সঠিক আছে ও আমরা ভবিষ্যততে ভাল করতে পারবো কিনা ?

সবকিছু সঠিক ও সুন্দর করে পড়ে যদি বিনিয়োগ করার মত নগদ টাকা রেডি থাকে ও আপনি ফেস টু ফেস কথা বলতে চান তাহলে ফোন দিয়ে দেখা করতে পারেন । আমি ব্যক্তিগত ভাবে খোলাখুলি কথা বলা পছন্দ করি , কোন লুকোচুরি না । যদি কেউ আমারা সাথে সুন্দর ও ব্যবসায়িক মন মানসিকতা নিয়ে ব্যবসা করতে চাই তাহলে বসতে পারেন । আমার পক্ষ থেকে এক কাপ চা/ কফি খাওয়ার দাওয়াত রইলো । ধন্যবাদ


অভিযোগ করুন

যোগাযোগ করুন

  • ০১৭১৭৯১২৫৮২

 

নিরাপদ থাকুন!

  • সর্বদা বিক্রেতার সাথে সরাসরি দেখা করবেন
  • আপনি যা কিনতে যাচ্ছেন তা দেখার পূর্বে কোনো টাকা পরিশোধ করবেন না
  • অচেনা কারও নিকট টাকা পাঠাবেন না

দেখুন:

  • অবাস্তব মূল্য
  • অতিরিক্ত ফি
  • অগ্রিম অর্থ প্রদানের অনুরোধ
  • ব্যক্তিগত তথ্যের জন্য অনুরোধ

নিরাপদে থাকার আরও কিছু কৌশল

চ্যাট


বিজ্ঞাপনটি শেয়ার করুন
এই বিজ্ঞাপনটি প্রচার করুন